Author: স্টেটওয়াচ ডেস্ক

বর্তমান সময়ের আলোচিত ও মর্মস্পর্শী ঘটনা দুর্ঘটনা। বাংলাদেশে প্রতিদিন কোথাও না কোথাও দুর্ঘটনা ঘটছে। এসব দুর্ঘটনায় জীবন খাতা থেকে হারিয়ে যাচ্ছে মানুষ। মূল্যবান জীবনের সঙ্গে হারিয়ে যাচ্ছে সম্পদ, ধূলিসাৎ হয়ে যাচ্ছে হাজারো স্বপ্ন। দুর্ঘটনায় হাজারো পরিবার উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে পথে বসছে। করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ৮৫ দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকার পরেও বিদায়ী ২০২১ সালে ৫ হাজার ৬২৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ৮০৯ জন নিহত ও ৯ হাজার ৩৯ জন আহত হয়েছেন। আজ রোববার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি এ তথ্য তুলে ধরে। যাত্রী কল্যাণ সমিতি জানায়, একই সময় রেলপথে ৪০২টি দুর্ঘটনায় ৩৯৬ জনের মৃত্যু হয়।…

Read More

অত পানি নেই আমাদের চাঁদের। এই সৌরমন্ডলের প্রায় শেষ প্রান্তেও রয়েছে আটলান্টিক বা প্রশান্ত মহাসাগরের মতো মহাসাগর! যেখানে কোনো অভাবই নেই পানির! একেবারে আদিগন্ত, অতলান্ত মহাসাগর। হ্যাঁ, সূর্য থেকে অত দূরেও। শনির চাঁদ—মিমাস-এ সেই পানি আমাদের এই গ্রহের মতোই রয়েছে একেবারে তরল অবস্থায়। খবর সায়েন্স নিউজের সৌরজগতের দ্বিতীয় বৃহত্তম গ্রহ শনির চাঁদগুলোর মধ্যে আটটি প্রধান। এর মধ্যে আছে মিমাস। এই উপগ্রহের পরিবেশ অনেকটা পৃথিবীর মতো উষ্ণ। এতে আছে মহাসাগর। অন্তত ২৪ থেকে ৩১ কিলোমিটার পুরু বরফে আচ্ছাদিত মিমাস। মহাসাগরের তরল পানির স্পর্শ পেতে বরফের পুরু আস্তরণ ভেদ করতে হবে বলে দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার গবেষকরা। তারা উপগ্রহটি…

Read More

বিশ্বজুড়ে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পুরুষের তুলনায় বেশি ঝুঁকিতে আছেন নারীরা। জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি) সাম্প্রতিক এক জরিপে দেখা গেছে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পুরুষের তুলনায় নারীদের ক্ষতির পরিমাণ অনেক বেশি। ‘বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ হাউসহোল্ড এক্সপেনডিচার সার্ভে’ নামের প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয় গত অক্টোবরে। বাংলাদেশের মানুষের ওপর জলবায়ু পরিবর্তনের আর্থিক প্রভাব নিয়ে এ ধরনের জরিপ এই প্রথম। ১০টি জেলার ৩ হাজার ৯৫টি খানা বা পরিবারের ওপর এ জরিপ চলে। এর মধ্যে ৪২ শতাংশের বেশি পরিবার বন্যাদুর্গত এবং ৪০ শতাংশের বেশি ঝড় বা জলোচ্ছ্বাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাকিরা কোনো না কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগের ভুক্তভোগী। জলবায়ু বিশেষজ্ঞ এবং ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ক্লাইমেট চেঞ্জ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের…

Read More

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন অমিক্রনের প্রভাবে সারা বিশ্বে নতুন করে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার কারণে অর্থনীতিতে আবারও কিছুটা স্থবিরতা তৈরি হয়েছে। অনেক জায়গায় লকডাউন ও বিধিনিষেধের কারণে এমনটা ঘটছে। এই বাস্তবতায় চলতি বছর বৈশ্বিক শ্রম সময় কমবে বলেই শঙ্কা আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও)। অর্থাৎ এ বছরও শ্রমবাজার মহামারির আগের ধারায় ফিরতে পারবে না। আইএলওর ‘বিশ্ব কর্মসংস্থান ও সামাজিক পূর্বাভাস’ শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালে মহামারি শুরুর সময়ের তুলনায় পৃথিবী অনেকটা ঘুরে দাঁড়িয়েছে, কিন্তু ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২২ সালেও পিছিয়ে থাকবে অর্থনীতি। আর তাতে কর্মঘণ্টা কমবে। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) তথ্যানুসারে, ২০২২ সালে বৈশ্বিক কর্মসময় ২০১৯ সালের তুলনায় ২ শতাংশ কম থাকবে।…

Read More

বিশ্বজুড়ে এক প্রভাবশালী লেখকের নাম আনা ফ্রাঙ্ক। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে ছোট্ট আনা ডায়েরি লিখে পৃথিবীজুড়ে ব্যাপক আলোড়ন তোলেছিলেন। ১৯৪৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে মাত্র ১৫ বছর বয়সে নাৎসি বাহিনীর বন্দিশিবিরে মারা যান আনা। তার মৃত্যুর পর তার ডায়েরি প্রকাশিত হলে নাৎসি শিবিরে ইহুদি নির্যাতনের চিত্র আরও স্পষ্ট হয়। সাহিত্যাঙ্গন থেকে শুরু করে সর্বত্র আজও আনা ফ্রাঙ্কের ডায়েরি প্রাসঙ্গিক। হৃদয়স্পর্শী ডায়েরি লিখে পৃথিবীজুড়ে আলোচিত কিশোরী আনা ফ্রাঙ্ক মারা যান ১৯৪৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে। এর সাত মাস আগে নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামের একটি গোপন জায়গা থেকে তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা নাৎসি বাহিনীর হাতে ধরা পড়েন। এরপর থেকেই প্রশ্ন উঠেছে, কীভাবে ধরা পড়ল ফ্রাঙ্ক পরিবার? কে…

Read More

স্বাদে জুড়ি নেই মিনিকেট চালের ভাতের। এ চালের ভাতের রসনা তৃপ্তির জন্য ব্যাকুল মানুষ। অথচ দেশে ‘মিনিকেট’ নামে কোনো ধানের জাত না থাকলেও এই নামে প্রতারণার মাধ্যমে রমরমা বাণিজ্য চলছে দীর্ঘকাল ধরে। এক শ্রেণির চালকল মালিক মোটা চাল ছেঁটে সরু করে ‘মিনিকেট’ বলে বাজারজাত করে বিপুল পরিমাণ মুনাফা লুটে নিচ্ছে। দেশে প্রায় আড়াই দশক ধরে ‘মিনিকেট’ নামে চাল বাজারজাত হচ্ছে। বাজারে চালু ধারণা হলো, এটি একটি বিশেষ জাতের চাল, যা দেখতে চিকন, ফর্সা এবং চকচকে। ফলে অনেক ভোক্তা বাড়তি খরচ দিয়ে হলেও কিনে খেয়েছেন মিনিকেট নামের চিকন চাল। খাদ্য মন্ত্রণালয়ের একটি গবেষক দল দেশের ১০টি জেলা থেকে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে…

Read More

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শিক্ষার্থীদের কর্মসূচিতে পুলিশের হামলার ঘটনার প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিন্দার ঝড় বইছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে দেশের নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে ফেসবুকে নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন। ঘটনার সূত্রপাত বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হল প্রভোস্ট বডির পদত্যাগসহ তিন দফা দাবি ও অবস্থান কর্মসূচিতে হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত। রোববার (১৬ জানুয়ারি) চতুর্থ দিনের মতো আন্দোলন করছিলেন শিক্ষার্থীরা। তবে বিকেলের পর থেকে উত্তপ্ত হয়ে পড়ে ক্যাম্পাস। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, দাবি আদায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়া আইআইসিটি…

Read More

আদিমকালে মানুষ বনবাদাড়ে একাকী ঘুরে বেড়াত, একাকী খাবারের সন্ধান করত এবং টিকে থাকার জন্য একাকী যুদ্ধ করত। এরপর একটা সময় মানুষ টিকে থাকার প্রয়োজনে একাকী জীবনযাত্রার সিস্টেমকে ত্যাগ করে অনেক মানুষের সঙ্গে থাকা শুরু করল এবং সমাজ তৈরি করল। সেই প্রাচীন সমাজ ধীরে ধীরে বিভিন্ন পরিবর্তনের ভেতর দিয়ে বর্তমান আধুনিক সমাজে রূপ নিল। সেই আধুনিক ও উত্তর-আধুনিক সমাজে পারস্পরিক সম্পর্কের একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হয়ে দাঁড়াল সোশ্যাল মিডিয়া। এ কথা বলতে দ্বিধা নেই যে সোশ্যাল মিডিয়া সারা পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তের মানুষকে প্রথমবারের মতো একে অপরের অনেক বেশি কাছে নিয়ে এসেছে। সারা বিশ্বকে লহমায় মানুষের হাতের মুঠোয় নিয়ে এসেছে। প্রযুক্তির উৎকর্ষ এই…

Read More

অতিমারির ফলে প্রায় প্রতিটি দেশে লকডাউন হয়েছে। অর্থনীতিতে তার প্রভাব পড়েছে। প্রচুর মানুষ চাকরি হারিয়েছেন। বহু মানুষ গরিব হয়েছেন। গরিব আরও গরিব হয়েছে। অন্যদিকে বিশ্বে অতিধনীর সংখ্যা বেড়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে সারাবিশ্বের অর্থনীতিতে যখন বিপর্যয়কর অবস্থায় তখন ঠিকই নিজেদের সম্পদ বাড়িয়ে নিয়েছেন বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী। এর বিপরীতে দারিদ্র্য ও অসমতা বেড়েছে। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম এতথ্য জানিয়েছে। দারিদ্র্য বিমোচনে কাজ করা এই প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে আরও বলা হয়েছে, এই মহামারিকালে যে পরিমাণ সম্পদ ধনীদের বেড়েছে, গত ১৪ বছরে সেই পরিমাণ সম্পদ বাড়েনি। কিন্তু এমন সময়ে সম্পদ বাড়ছে, যখন বিশ্ব অর্থনীতি সংকটের মুখে রয়েছে। সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক…

Read More

লেখক ও গবেষক সাইফুল বাতেন টিটোর বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ঘোষিত উপন্যাস ‘বিষফোঁড়া’ এবার ভারতের আসাম প্রদেশে অসমীয়া ভাষায় প্রকাশিত হয়েছে। আসামের প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘মুক্তবাক অসম প্রকাশন’ বইটি প্রকাশ করেছে। বইটির প্রকাশ উপলক্ষে প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানটি গত ২৫ ডিসেম্বর শনিবার বিকেলে একটি প্রকাশনা উৎসবের আয়োজন করেছে। বইটি গবেষণালব্ধ, মাদ্রাসায় শিশু ধর্ষণকে উপজীব্য করে লেখা হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আসামের বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক অধ্যাপক দ্বিজেন বর্মন, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও অ্যাক্টিভিস্ট কস্তুরী লালবেগী, যুক্তিবাদী লেখক ও অ্যাক্টিভিস্ট রিপুঞ্জয় গগৈ এবং সাবেক মাদ্রাসাশিক্ষক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট আবদুল্লাহ আল মাসুদ। বাংলাদেশে নিষিদ্ধ হওয়া সত্বেও বইটি প্রকাশনা বিষয়ে প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, বাংলাদেশের নিষিদ্ধ থাকা সত্ত্বেও বইটি ভারতের…

Read More