Trial Run

কুমিল্লায় হাত-পা বেঁধে মাদ্রাসা ছাত্রকে ধর্ষণ

নাঙ্গলকোটে হাত-পা বেঁধে মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকার

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট ১১ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রকে হাত পা বেঁধে বলৎকারের অভিযোগে আনা মিয়া নামে (৫২) এক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে থানা পুলিশ। 

রোববার (০১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার পেরিয়া ইউনিয়নের উত্তর শাকতলী ছাতিয়ারা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। অভিযুক্ত আনা মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে সোমবার (০২ নভেম্বর) জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে মাদ্রাসা ছাত্রটি উত্তর শাকতলী গ্রামের একটি পরিত্যক্ত মৎস্য প্রজেক্টে ঘুরতে যায়। সেখানে আনা মিয়া ওই ছাত্রটিকে একা পেয়ে তার হাত পা বেঁধে জোরপূর্বক মাছের প্রজেক্টের পরিত্যক্ত স্যালোমেশিন ঘরে নিয়ে বলৎকার করে।

পরে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য রোববার সন্ধ্যায় শালিস বৈঠক বসে। তাৎক্ষনিক খবর পেয়ে নাঙ্গলকোট থানার উপপরিদর্শক মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন খন্দকার ওই শালিস বৈঠক থেকে আনা মিয়াকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। এই ঘটনায় শিশুর পিতা বাদী হয়ে নাঙ্গলকোট থানায় মামলা দায়ের করেন।

নাঙ্গলকোট থানার অফিসার ইনচার্জ বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘খবর পেয়ে শালিস বৈঠকে অভিযান চালিয়ে আনা মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিকভাবে সে বলৎকারের বিষয়টি স্বীকার করে।’

ছড়িয়ে দিনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Source : সময় নিউজ.টিভি