Trial Run

আইনপ্রয়োগের চিত্র ও গণমাধ্যম: ২৭ ডিসেম্বর ২০২০

স্টেটওয়াচ রিসার্চ নেটওয়ার্ক কাজ করছে বাংলাদেশে আইনপ্রয়োগের সার্বিক চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সংক্রান্ত বাস্তবতা নিয়ে। এর অংশ হিসেবে স্টেটওয়াচ নিউজে আমরা প্রতিদিনকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত খবরাখবরগুলো সংক্ষেপে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছি। প্রতিদিন নিম্নোক্ত মাধ্যমসমূহ থেকে সংবাদগুলো সংগ্রহ ও তা নথিবদ্ধ করছে আমাদের কর্মীরা: প্রথম আলো, কালের কণ্ঠ, যুগান্তর, সমকাল, নয়া দিগন্ত, ইত্তেফাক, দেশ রূপান্তর, ডেইলি স্টার, নিউ এজ, দ্য ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস, বাংলা ট্রিবিউন, বিডিনিউজ২৪ ডটকম, আমাদের সময়, মানবজমিন। আমরা আশা করি, এই প্রতিবেদন নিয়মিত প্রকাশের মাধ্যমে জনগণের তথ্যপ্রাপ্তির অধিকার আরো শক্তিশালী হবে।

২৭ ডিসেম্বর ২০২০, রবিবার, ১২ পৌষ ১৪২৭, পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত নির্বাচিত খবরের সার-সংক্ষেপ

নাপিতকে চিকিৎসকের বিয়ে, মানতেই পারছেন না সিআইডির এই এসপি

প্রথম আলো
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

রংপুরে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাসের বিশ্বাস, একজন নাপিতকে বিয়ে করায় নারী চিকিৎসক অন্যায় করেছেন। স্বাধীনতা আছে বলেই তিনি যা ইচ্ছা তাই করতে পারেন না। তিনি শুধু পরিবার নয়, চিকিৎসক সমাজকে লজ্জায় ফেলেছেন।

২৩ ডিসেম্বর রংপুরে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস নগরীর কেরানীপাড়া এলাকায় সিআইডি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। ওই সম্মেলনে পুলিশ চিকিৎসক, তাঁর নাপিত স্বামী ও সন্তানকে হাজির করেন। তিনি জানান, ওই নারী চিকিৎসকের বাবা চিকিৎসক মেয়ে (৩৪) অপহৃত হয়েছেন বলে মামলা করেছিলেন। প্রায় ২১ মাস পর তাঁদের সবাইকে মোহাম্মদপুর থেকে উদ্ধার করা হয়।  ওই চিকিৎসক একজন স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ।

যদিও আদালতে উপস্থাপনের পরপরই ওই নারী জানান, তিনি স্বামী–সন্তান নিয়ে সুখে সংসার করছেন, অপহরণের শিকার হননি। আদালত তাঁর এই বক্তব্যের পরপরই তাঁকে নিজ জিম্মায় ছেড়ে দেন। তাঁর স্বামী এখনো অপহরণ মামলায় কারাগারে। প্রাপ্তবয়স্ক একজন নারী কাকে বিয়ে করেছেন, তা নিয়ে সিআইডির এই সংবাদ সম্মেলন আলোচনার জন্ম দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সংবাদ সম্মেলন করে পুলিশ আদালতের নির্দেশনা এবং আইন দুই–ই লঙ্ঘন করেছে এমন মন্তব্যও করেছেন নেটিজেনরা।

 

রিভলবার বেচতে গিয়ে ধরা পুলিশ কনস্টেবল

প্রথম আলো
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

চট্টগ্রামে অস্ত্র বিক্রি করতে গিয়ে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের হাতে অস্ত্রসহ (রিভলবার) ধরা পড়েছেন এক পুলিশ সদস্য। তাঁর নাম সৌরভ বড়ুয়া। তিনি চট্টগ্রাম শিল্প পুলিশে কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

শুক্রবার রাতে নগরের কোতোয়ালি থানার জেলা পরিষদ মার্কেটের সামনে থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। কঠোর গোপনীয়তা নেওয়া হলেও আজ সন্ধ্যায় বিষয়টি জানাজানি হয়। শিল্প পুলিশ সূত্র জানায়, অস্ত্রসহ গ্রেপ্তারের পর কনস্টেবল সৌরভ বড়ুয়াকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এই ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) বেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে নগরের কোতোয়ালি থানায় আজ শনিবার অস্ত্র আইনে মামলা করেন। পরে এই মামলায় আসামি পুলিশ সদস্য সৌরভ বড়ুয়াকে আদালতের মাধ্যমে আজ সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম শিল্প পুলিশে কর্মরত কনস্টেবল সৌরভ বড়ুয়া পাঁচ দিন আগে থেকে ছুটিতে রয়েছেন। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে নগর গোয়েন্দা পুলিশ জানতে পারে, জেলা পরিষদ মার্কেটের সামনে অস্ত্র বিক্রির জন্য এক ব্যক্তি অপেক্ষা করছেন। তখনই তারা সেখানে গিয়ে সৌরভ বড়ুয়াকে আটক করে। পরে তাঁর কাছ থেকে একটি রিভলবার উদ্ধার করা হয়। কঠোর গোপনীয়তার মধ্য দিয়ে সৌরভকে নগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে রাখা হয়। পরে এই ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়। জানতে চাইলে নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) শাহ মুহাম্মদ আবদুর রউফ আজ সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে বলেন, অস্ত্রসহ এক পুলিশ সদস্যকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

 

ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে সাংবাদিক গ্রেপ্তার

প্রথম আলো
বিভাগ: ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট

পাবনার চাটমোহর উপজেলায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায়  শনিবার এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। চাটমোহর পৌরসভার এক কাউন্সিলরের করা মামলায় জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তি হলেন কে এম বেলাল হোসেন। তিনি চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও সাপ্তাহিক সময়-অসময় পত্রিকার সম্পাদক। চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, আগামী সোমবার চাটমোহর পৌরসভা নির্বাচনে ভোট নেওয়া হবে। এতে ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর রাজ হাসানও প্রার্থী হয়েছেন।  শুক্রবার রাতে বেলাল ফেসবুকে হাসানকে নারীঘটিত বিষয়ে জড়িয়ে পোস্ট দেন। এ ঘটনায় রাতেই বেলালকে আসামি করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন হাসান। গতকাল দুপুরে ডিবির একটি দল উপজেলা সদর থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

ডিবির ওসি তোজাম্মেল হক সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বলেন, গ্রেপ্তারের পর ওই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁকে চাটমোহর থানায় হস্তান্তর করা হবে। সেখান থেকে তাঁকে আদালতে পাঠানো হবে।

 

রিডিং ক্লাব ট্রাস্টের গণবক্তৃতায় বক্তারা
সংবাদপত্রের স্বাধীন ও দল নিরপেক্ষ অবস্থানই কাম্য

প্রথম আলো
বিভাগ: গণমাধ্যম

বিতর্ক ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতাই স্বাধীন সংবাদপত্রের প্রধান বৈশিষ্ট্য হওয়া উচিত। লক্ষ্য হওয়া উচিত সঠিক তথ্যনির্ভর, স্বাধীন ও দলনিরপেক্ষ অবস্থান। তবে দেশে গণতন্ত্র না থাকলে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা কঠিন হয়ে দাঁড়ায়।

রিডিং ক্লাব ট্রাস্ট আয়োজিত ৪০০তম সাপ্তাহিক গণবক্তৃতায় বক্তারা এসব কথা বলেন। শনিবার সন্ধ্যায় ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর ও সংবাদপত্র’ শীর্ষক বক্তৃতা করেন প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান। ভার্চ্যুয়ালি আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অনারারি অধ্যাপক সাখাওয়াত আলী খান।

বাংলাদেশের বিভিন্ন ঐতিহাসিক ও রাজনৈতিক ঘটনায় সংবাদপত্রের ভূমিকা প্রসঙ্গে মতিউর রহমান বলেন, এ দেশে সংবাদপত্রের গৌরবময় অতীত রয়েছে। সামরিক সরকারের সময়ে কঠিন পরিস্থিতিতেও বাংলাদেশে সংবাদপত্র কাজ করেছে। বিভিন্ন সরকারের হাতে মামলা, হামলা, হয়রানির শিকার হয়েও সংবাদপত্র গণতন্ত্র ও মানুষের কথা বলে যাচ্ছে। তবে বিগত তিন দশকে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও ব্যবসায়িক স্বার্থে সংবাদপত্র প্রতিষ্ঠা ও পরিচালিত হয়েছে। মতিউর রহমান আরও বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে সংবাদপত্র এখন অনলাইন বাস্তবতার সম্মুখীন। বেশ কয়েক বছর ধরেই বিশেষজ্ঞরা অনলাইন মাধ্যমের বিকাশের কথা বলে আসছিলেন। এখন তা বাস্তব। ছাপা পত্রিকার প্রচারসংখ্যা ও আয় কমেছে; অন্যদিকে অনলাইনে পাঠক ও আয় বাড়ছে। দেশের পত্রিকাগুলোকে এই অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে সাখাওয়াত আলী খান বলেন, সংবাদপত্রকে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ বলা হয়। নির্বাহী বিভাগ, বিচার বিভাগ ও সংসদ—এই তিন স্তম্ভের মতো সংবাদপত্রকেও স্বতন্ত্র অস্তিত্ব রক্ষা ও দায়িত্ব পালন করে যেতে হবে।

 

Journo held in case filed under DSA

The Daily Star
Catagorey : Digital security act

The Detective Branch (DB) of police yesterday arrested a journalist in connection with a harassment case filed by a pro-Awami League councillor candidate in Chatmohar upazila of Pabna.

The arrestee is KM Belal Hossain Shopon, 55, editor of weekly Somoy Asomoy, and also the president of Chatmohar Upazila Reporters Unity.

Raj Ali, pro-AL councillor candidate of Chatmohar municipality’s ward-4, filed the case against the journalist under the Digital Security Act on Friday night.

Tozammel Haque, officer-in-charge of Pabna DB police, said they arrested Belal from his home at noon and were investigating the allegations brought against him.

“The arrestee will produce before the court on Sunday morning.” the DB OC added. Talking to The Daily Star, Rokibur Rahman Tukun, president of Chatmohar press club, said Belal was working for the rival candidate of the complainant.

 

First aid for accident victims at DMP police boxes

New Age
Category:  State force

People injured in road accidents and different crimes will be offered first aid at traffic police boxes in the capital from now on.

The Dhaka Metropolitan Police has added primary medical response facilities at 20 traffic police boxes in Motijheel area. The metropolitan police commissioner Shafiqul Islam inaugurated the facilities at Santinagar traffic police box on Saturday.

He said that traffic people members are the primary respondents in any accidents or criminal activities in streets. They should ensure primary medical responses and send victims to hospitals for further medical supports, he added. The 20 traffic boxes at different intersections in Motijheel area will have the first aid facilities, said Shafiqul. The boxes will be equipped with first aid boxes, fire extinguishers, stretchers, drinking water, said additional commissioner for traffic Abdur Razzak. He said that they would try to add the facilities to traffic police boxes across the metropolitan area gradually. The metropolitan police senior officials said that field level traffic policemen had long been complaining about lack of toilet facilities for them.

 

Director, actor held over portrayal of police in film

New Age
Category:  State force

The police arrested filmmaker Anonno Mamun and actor Shaheen Mridha on early Friday in connection with a case filed against them for allegedly tarnishing the image of the police in a film. A Dhaka court sent them on Friday afternoon to judicial custody in the case filed under the Pornography Act over the use of offensive dialogue in the film titled ‘Nabab LLB’, said Walid Hossain, the deputy commissioner for media of the Dhaka Metropolitan Police.

A team of DMP Cyber and Special Crime Department arrested them at Mirpur and later placed them before the court. DMP cyber unit inspector Nasirul Amin filed the case with Ramna Police Station. In a scene of Nawab LLB actress Sporshia was seen going to a police station to file a case as a rape victim. A police sub-inspector, played by actor Shaheen Mridha, asked her offensive questions about the rape. The police objected about that scene in the case.

Half of the movie was released on December 16 in over-the-top media service named ‘I Theatre’ using internet. The rest of the movie is scheduled to be released on January 1.

DMP special crime and cyber department’s deputy commissioner Muhammad Shariful Islam said that a scene was objectionable and against decent entertainment.

 

 

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share