Trial Run

বন্ধ হলো ট্রাম্পের যোগাযোগের প্ল্যাটফর্ম

ছবি: সংগৃহীত

প্রচলিত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিষিদ্ধ হয়ে ভক্ত-অনুসারীদের জন্য নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম চালু করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার সেটিও বন্ধ হয়ে গেছে।

ফেসবুক-টুইটার-ইউটিউবে নিষিদ্ধ হয়ে ট্রাম্প গত মাসে Desk of Donald J Trump নামে একটি ওয়েবসাইট খুলেছিলেন। এতে তিনি তার মতামত প্রকাশ করতেন। ট্রাম্পের প্রতিনিধি জেসন মিলার জানিয়েছেন, এটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ট্রাম্পের উসকানিতে তার সমর্থকেরা গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে তাণ্ডব চালায়। ওই হামলার পর সামাজিক যোগাযোগের প্রধান প্রধান মাধ্যমে ট্রাম্পকে নিষিদ্ধ করা হয়। টুইটার স্থায়ীভাবে ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার কথা জানায়। ফেসবুক সাময়িকভাবে তার অ্যাকাউন্ট বন্ধ রেখে তা আবার চালু করা হবে কি না, তা মূল্যায়ন করছে।

মতপ্রকাশের ক্ষেত্রে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো বাধা প্রদান করছে বলে আগে থেকেই ট্রাম্প সমালোচনা করে আসছিলেন। একপর্যায়ে তার পক্ষ থেকে মিলার জানিয়েছিলেন, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আমূল পরিবর্তনের একটি মাধ্যম খুলবেন ট্রাম্প।

সামাজিক যোগাযোগের প্রধান প্রধান মাধ্যমে নিষিদ্ধ হওয়ার পর অনেকটা হাঁপিয়ে ওঠেন ট্রাম্প। ক্ষমতা থেকে যাওয়ার পর তিনি ই-মেইলের মাধ্যমে তার অনুসারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে আসছিলেন। এ ছাড়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নিজের বক্তব্য প্রকাশ করে আসছেন তিনি।

গত ৪ মে ট্রাম্প যোগাযোগের নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম চালু করেন। এই প্ল্যাটফর্মে তিনি তার বক্তব্য পোস্ট দিতে থাকেন। প্ল্যাটফর্মের নিয়ম অনুযায়ী, অন্যরা তার পোস্টগুলো শেয়ার করতে পারছিলেন। তবে পেজটিতে তার ভক্ত-অনুসারীদের কোনো মতামত প্রকাশের সুযোগ ছিল না।

ফেসবুক-টুইটারের মাধ্যমে ট্রাম্প ২০১৬ ও ২০২০ সালের নির্বাচনে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়েছিলেন। ক্ষমতায় থাকাকালে ট্রাম্প টুইটার ও ফেসবুকে খুবই সক্রিয় ছিলেন। এসব সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম নিয়মিত ব্যবহার করে তিনি আলোচনায় থাকতেন।

ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার পর সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টরা সরাসরি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড এড়িয়ে চলেন। ট্রাম্প তার ব্যতিক্রম। তিনি তার রাজনৈতিক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। ২০২৪ সালের নির্বাচনে তিনি আবার প্রার্থী হবেন, এমন আভাসও দিয়ে রেখেছেন। এ ছাড়া রিপাবলিকান পার্টির রক্ষণশীল লোকজনকে তিনি প্রকাশ্যে সমর্থন করছেন। বিরোধীদের সমালোচনা করছেন। ২০২২ সালের মধ্যবর্তী নির্বাচনে কংগ্রেসে নিজের অনুগত রক্ষণশীলদের জয়ী করতে ইতিমধ্যে ট্রাম্প কাজে নেমে পড়েছেন।

এসডব্লিউ/এমএন/ এফএ/১৩০৩


State watch সকল পাঠকদের জন্য উন্মুক্ত সংবাদ মাধ্যম, যেটি পাঠকদের অর্থায়নে পরিচালিত হয়। যে কোন পরিমাণের সহযোগিতা, সেটি ছোট বা বড় হোক, আপনাদের প্রতিটি সহযোগিতা আমাদের নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে বড় অবদান রাখতে পারে। তাই State watch-কে সহযোগিতার অনুরোধ জানাচ্ছি। 

ছড়িয়ে দিনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আপনার মতামত জানানঃ