আইনপ্রয়োগের চিত্র ও গণমাধ্যম: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

স্টেটওয়াচ রিসার্চ নেটওয়ার্ক কাজ করছে বাংলাদেশে আইনপ্রয়োগের সার্বিক চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সংক্রান্ত বাস্তবতা নিয়ে। এর অংশ হিসেবে স্টেটওয়াচ নিউজে আমরা প্রতিদিনকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত খবরাখবরগুলো সংক্ষেপে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছি। প্রতিদিন নিম্নোক্ত মাধ্যমসমূহ থেকে সংবাদগুলো সংগ্রহ ও তা নথিবদ্ধ করছে আমাদের কর্মীরা: প্রথম আলো, কালের কণ্ঠ, যুগান্তর, সমকাল, নয়া দিগন্ত, ইত্তেফাক, দেশ রূপান্তর, ডেইলি স্টার, নিউ এজ, দ্য ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস, বাংলা ট্রিবিউন, বিডিনিউজ২৪ ডটকম, আমাদের সময়, মানবজমিন। আমরা আশা করি, এই প্রতিবেদন নিয়মিত প্রকাশের মাধ্যমে জনগণের তথ্যপ্রাপ্তির অধিকার আরো শক্তিশালী হবে।

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ মঙ্গলবার, ১০ ফাল্গুন ১৪২৭ পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত নির্বাচিত খবরের সার-সংক্ষেপ।

 

ইয়াবা দিয়ে যুবকের থেকে টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ

 

বাংলা ট্রিবিউন

বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার ফুলতলী এলাকায় পুলিশের বিরুদ্ধে নূরনবী (৩৫) নামক এক যুবককে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসিয়ে এক লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়নের ফুলতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর স্থানীয়রা টহল পুলিশকে ঘেরাও করে রাখে। তবে স্থানীয়দের তোপের মুখে পুলিশ জব্দ করা কোনও ইয়াবা দেখাতে পারেনি। পরে থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এসে ওই যুবকেকে মোটরসাইকেলসহ থানায় নিয়ে যায়।

 

বুধবার বিকেলে পুলিশ প্রধানের সঙ্গে বিএনপির বৈঠক

 

সংবাদ বাংলা

বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) পুলিশের মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) সঙ্গে বৈঠক করবে বিএনপির একটি প্রতিনিধিদল। এদিন বিকেল সাড়ে ৪টায় পুলিশ সদর দফতরে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে সারাবাংলাকে জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেসউইং সদস্য শায়রুল কবির খান। এর আগে, দেখা করতে চেয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শককে (আইজিপি) চিঠি দেয় বিএনপি। দলটির চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তারের সই করা ওই চিঠি সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) পুলিশ সদর দফতরে পাঠানো হয়। দলীয় সূত্রে জানা যায়, বিএনপির উদ্যোগে স্বাধীনতা সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে গৃহীত কর্মসূচির সার্বিক নিরাপত্তা ও সহযোগিতার প্রয়োজনে আলোচনার জন্য পুলিশের মহাপরির্দশকের সঙ্গে বৈঠক করবেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালামসহ চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।

 

ঘুষ কেলেঙ্কারি: পুলিশ কর্মকর্তার সাজা আপিলেও বহাল

 

বাংলা ট্রিবিউন

বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

 ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় চট্টগ্রামের ডাবলমুরিং থানার এসআই নবী উল্লাহকে হাইকোর্টের দেওয়ার এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে তার আবেদন খারিজ করে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। অপরদিকে আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা। সাঈদ আহমেদ রাজা বলেন, তিনি (এসআই নবী উল্লাহ ) বর্তমানে জামিনে আছেন। এর আগে তিনি ৯ মাসেরও বেশি সময় কারাভোগ করেছেন। তাই তাকে পুনরায় আদালতে আত্মসমর্পণের প্রয়োজন নেই। তাছাড়া আমরা আপিল বিভাগের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ দায়ের করবো।

 

পুলিশের ধাওয়ায় অটোরিকশা খাদে পড়ে চালক নিহত

 

জাগো নিউজ

বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

হবিগঞ্জের বাহুবলে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে হাইওয়ে পুলিশের ধাওয়ায় সিএনজি অটোরিকশা খাদে পড়ে এর চালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৫ জন। এ ঘটনায় স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনতা মহাসড়ক অবরোধ করে। এ সময় একটি মোটরসাইকেলে আগুন দেয়া হয়। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার বাগানবাড়ি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে বাহুবল থানার পুলিশ ও শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা চালায়। বাহুবল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এখও নিহত ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা যায়নি।

 

প্রতিবেদন সরাতে চাপ স্বাধীন সাংবাদিকতায় বাধা সৃষ্টির কৌশল: চবি সাংবাদিক সমিতি

 

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

বিভাগ: গণমাধ্যম

পুরনো প্রতিবেদন মুছে ফেলার জন্য বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে কয়েক ডজন উকিল নোটিস পাঠিয়ে মামলার হুমকি দেওয়ার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (চবিসাস)।

সোমবার এক বিবৃতিতে চবিসাসের সভাপতি ইমরান হোসাইন এবং সাধারণ সম্পাদক মুনাওয়ার রিয়াজ মুন্না ঘটনাটিকে ‘স্বাধীন সাংবাদিকতাকে বাধাগ্রস্ত করার কৌশল’ হিসেবে বর্ণনা করে সংশ্লিষ্টদের তা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা জেনেছি দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ইতোমধ্যে তিন ডজনের বেশি উকিল নোটিস পাঠানো হয়েছে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের জ্যেষ্ঠ চার সম্পাদকের নামে। সেখানে বলা হচ্ছে, ওই সব প্রতিবেদন ‘ডিলিট’ না করলে মামলা করা হবে। মামলা হবে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আর মানহানির অভিযোগে।

নেতৃবৃন্দ মনে করেন, সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও হয়রানির উদ্দেশ্যে এ ধরনের অনৈতিক চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে; যা স্বাধীন সাংবাদিকতাকে বাধাগ্রস্ত করার একটি কৌশল। বিবৃতিদাতারা বলেন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা না থাকলে দেশের মানুষের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছানো অসম্ভব হয়ে পড়বে।

 

কার গুলিতে মারা গেলেন সাংবাদিক মুজাক্কির?

 

দ্যা ডেইলি স্টার

বিভাগ: গণমাধ্যম

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে গত শনিবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে মারা গেছেন সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৫)। সংঘর্ষের চার দিন পেরিয়ে গেলেও কার গুলিতে মুজাক্কির মারা গেছেন- এখনও তা উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ।

ঘটনার দিন গত শুক্রবার বিকেলে ত্রিপক্ষীয় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। বসুরহাট পৌর মেয়র এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই আবদুল কাদের মির্জা এবং কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে ৯ জন গুলিবিদ্ধসহ অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ১০-১২ রাউন্ড রাবার বুলেট ছোঁড়ে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সংঘর্ষের সময় উপস্থিত কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার এক সাংবাদিক জানান, মির্জা কাদের ও বাদলের অনুসারীদের ধাওয়া, সংঘর্ষের ছবি তোলার সময় হামলাকারীরা মুজাক্কিরের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। এসময় তার মোবাইল ফোন ফেরত চাইলে হামলাকারীরা তাকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছোঁড়ে। গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন মুজাক্কির। তবে পুলিশ এবং আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের দাবি তাদের গুলিতে মারা যাননি মুজাক্কির। কাদের মির্জা ও মিজানুর রহমান বাদল মুজাক্কির হত্যায় একে অন্যের দিকে আঙ্গুল তুলেছেন।

 

সাংবাদিক মুজাক্কিরকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় মামলা

 

বাংলা টিব্রিউন

বিভাগ: গণমাধ্যম

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় আজ মঙ্গলবার সকালে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের বাবা মাওলানা নুরুল হুদা ওরফে নোয়াব আলী মাস্টার বাদী হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার নম্বর-২৬।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি জানান, মামলায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করা হয়েছে। মামলাটি অধিক গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে ইতোমধ্যেই তদন্ত শুরু হয়েছে। আশা করছি দ্রুতই চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচিত হবে। নিহত বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৮) অনলাইন পোর্টাল বার্তা বাজার এবং দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ছিলেন। তার বাবা মাওলানা নুরুল হুদা ওরফে নোয়াব আলী মাস্টার উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা।

 

কাদের মির্জার নেতৃত্বে সাংবাদিকের ওপর হামলা

 

যুগান্তর

বিভাগ: গণমাধ্যম

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে চরফকিরা ইউনিয়নে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের দাফন সম্পন্ন হওয়ার কিছুক্ষণ পর পরই বসুরহাটে আরেক সাংবাদিকের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বসুরহাট রূপালী চত্বর-সংলগ্ন সাংবাদিক প্রতিনিধি গিয়াস উদ্দিন রনির ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে মারধর করেছে কাদের মির্জার সমর্থকেরা। এ সময় কাদের মির্জা নিজেই গালমন্দ করতে করতে সাংবাদিকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের দিকে এগিয়ে যান। সাংবাদিক গিয়াস উদ্দিন অভিযোগ করেন, রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তিনি তাঁর ইলেক্ট্রনিক্স পণ্যের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। এমন সময় দোকানের সামনের সড়ক দিয়ে কাদের মির্জা যাওয়ার সময় তিনি তাকে সালাম দেন। এ সময় কাদের মির্জা তাকে গালমন্দ করে সামনের দিকে এগিয়ে আসেন। এক পর্যায়ে কাদের মির্জার সঙ্গে থাকা তার কয়েকজন অনুসারী তাকে (গিয়াস উদ্দিন) কয়েকটি কিল-ঘুষি দেন। এ সময় তার হাতে থাকা দুইটি মোবাইল ফোন সেট রাস্তায় পড়ে গেলে তারা নিয়ে যায়।

 

Violence in Noakhali: Probe takes back seat as cops busy ensuring calm

 

The Daily star

Category : Media

Four days have passed but police are yet to arrest anyone in connection with Noakhali’s Companiganj violence that killed a journalist and wounded around 19 others.

Police said they collected CCTV footage to identify the criminals. A chaotic situation is prevailing in the area. So, law enforcers are now prioritising law and order to ensure public security, said police. The clash on February 19 was between two factions of ruling Awami League over establishing supremacy in Companiganj. One group was led by Abdul Quader Mirza, younger brother of AL General Secretary Obaidul Quader, while the other was led by Mizanur Rahman Badal, organising secretary of upazila unit AL. Both the groups used firearms in the clash and police also fired around 10 to 12 bullets to bring the situation under control.A day later, journalist Borhan Uddin Muzakkir, 30, of online portal Barta Bazar, who was hit by bullets while covering the incident, died at Dhaka Medical College Hospital. Two cases have been filed in connection with the violence, but police could not arrest anyone.

 

Case filed in journalist Borhan killing

 

New Age

Category : Media

A case had been lodged with Companiganj police station in Noakhali in connection with the killing of journalist Borhan Uddin Mujakkir.

The journalist’s father Nawab Ali Master filed the case Tuesday morning accusing unidentified assailants, said the police officer-in-charge Mir Jahidul Haque Rony. None was arrested so far in this connection, he said. Borhan, the Companiganj correspondent of daily Bangladesh Samachar, died in Dhaka Medical College Hospital on February 20 after he had been shot while covering a clash between two factions of the ruling Awami League at Chaprashirhat of Companiganj on February 19.

ছড়িয়ে দিনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আপনার মতামত জানানঃ