Trial Run

আইনপ্রয়োগের চিত্র ও গণমাধ্যম: ১২ফেব্রুয়ারি ২০২১

স্টেটওয়াচ রিসার্চ নেটওয়ার্ক কাজ করছে বাংলাদেশে আইনপ্রয়োগের সার্বিক চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সংক্রান্ত বাস্তবতা নিয়ে। এর অংশ হিসেবে স্টেটওয়াচ নিউজে আমরা প্রতিদিনকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত খবরাখবরগুলো সংক্ষেপে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছি। প্রতিদিন নিম্নোক্ত মাধ্যমসমূহ থেকে সংবাদগুলো সংগ্রহ ও তা নথিবদ্ধ করছে আমাদের কর্মীরা: প্রথম আলো, কালের কণ্ঠ, যুগান্তর, সমকাল, নয়া দিগন্ত, ইত্তেফাক, দেশ রূপান্তর, ডেইলি স্টার, নিউ এজ, দ্য ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস, বাংলা ট্রিবিউন, বিডিনিউজ২৪ ডটকম, আমাদের সময়, মানবজমিন। আমরা আশা করি, এই প্রতিবেদন নিয়মিত প্রকাশের মাধ্যমে জনগণের তথ্যপ্রাপ্তির অধিকার আরো শক্তিশালী হবে।

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ শুক্রবার, ২৮ মাঘ ১৪২৭, পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত নির্বাচিত খবরের সার-সংক্ষেপ

 

পুলিশ অন্যায় করলে লিখবেন, মিথ্যা কিছু লিখবেন না: আইজিপি

যুগান্তর
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেছেন, পুলিশ বিভাগের কেউ অন্যায় বা ভুল করলে রিপোর্ট করবেন। কিন্তু মিথ্যা কথা লিখবেন না। বানিয়ে কিছু লিখবেন না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। বেনজীর আহমেদ বলেন, সাংবাদিকতায় এখন অনেক চৌকস মেধাবীরা আসছেন। তাদের কাছে আমাদের প্রত্যাশা অনেক বেশি। পুলিশ বিভাগেও স্বচ্ছতা জবাবদিহিতা ফিরিয়ে আনা হয়েছে। আমাদের ভালো কাজ মিডিয়ার মাধ্যমে জনগণ যেন জানতে পারে সেদিকে নজর দিতে হবে। মিডিয়া সোচ্ছার হলে সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ গুজব ছড়াতে পারবে না।

পুলিশ সদর দপ্তরের শাপলা কনফারেন্স সেন্টারে সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে ক্র্যাব সভাপতি মিজান মালিক ও সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন আরিফের নেতৃত্বে কমিটির অন্যান্য নেতা ও সদস্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 

সাগর-রুনি হত্যার বিচার দাবিতে ‘সংগ্রাম পরিষদ’ গঠনের ঘোষণা

সমকাল
বিভাগ: গণমাধ্যম

বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি চত্বরে সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যার বিচার দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় । সাংবাদিকদের সব সংগঠনের সঙ্গে সমন্বয় করে আগামী এক মাসের মধ্যে ‘সংগ্রাম পরিষদ’ গঠনের মাধ্যমে সাগর-রুনি হত্যার বিচারের আন্দোলন বেগবান করার ঘোষণা দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। তারা বলেছেন, অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনিকে নৃশংসভাবে নিজ বাসায় হত্যার ৯ বছর পেরিয়ে গেলেও হত্যাকারীদের শনাক্ত কিংবা গ্রেপ্তার করা হয়নি। বিচার প্রক্রিয়াও থমকে আছে। এমনকি মামলার অভিযোগপত্র দেওয়ার জন্য ৭৮ বার তারিখ নেওয়া হয়েছে। চাঞ্চল্যকর এই মামলার খুনিদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে তারা বলেন, এভাবে সভা-সমাবেশ করলে সরকার ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টনক নড়বে না। এ জন্য প্রয়োজন সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন।

সাগর-রুনির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে নেতারা এসব কথা বলেন। ডিআরইউ চত্বরে এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মুরসালিন নোমানী। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ডিআরইউর সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান। সমাবেশের শুরুতে সাগর-রুনি দম্পতির রুহের মাগফিরাত কামনায় দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

আইজিপি বেনজীর আহমেদ বলেন, সাংবাদিকদের সঙ্গে বিশেষ করে অপরাধ ক্র্যাবের সঙ্গে পুলিশের প্রাতিষ্ঠানিক সম্পর্ক রয়েছে। মেইন স্ট্রিম মিডিয়ায় জবাবদিহিতা রয়েছে। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো জবাবদিহিতা নেই। এই মিডিয়া থেকে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। এটা মোকাবিলা করতে যৌথভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

 

পুলিশের হাতে ‘লাঞ্ছিত সাংবাদিক

দৈনিক মানবকণ্ঠ
বিভাগ: গণমাধ্যম

ঢাকার মানিকগঞ্জে বন্ধুর বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে পুলিশের হাতে এক সাংবাদিক লাঞ্ছিতের অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলছেন, দুইজনের মধ্যে নিছক ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাত ১২টার দিকে উপজেলার দড়গ্রাম ইউনিয়নের সাফুল্লি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। পরে ওসির মৌখিক অনুমতিতে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে নির্যাতিত ওই সাংবাদিক গভীর রাতে বাসায় ফেরেন।

ভুক্তভোগী সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম সাব্বির দৈনিক মানবকণ্ঠের সাভার সংবাদদাতা ও অনলাইন রাইজিং বিডির প্রতিবেদক হিসেবে কর্মরত। তিনি ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা জেলার সাবেক সভাপতি। তিনি ঢাকার ধামরাইয়ের গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের বারবাড়িয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মিয়া উজ্জ্বল। এছাড়া অভিযুক্ত আরো দুই পুলিশ সদস্যের পরিচয় জানা যায়নি।

 

Erfan Salim among four charged over attack on navy officer

Dhaka Tribune
Category : State Force

On October 25 last year, a video of Lieutenant Wasif Ahmad Khan of Bangladesh Navy demanding justice in public went viral on social media after he was assaulted by Erfan, his bodyguard, chauffeur and a few accomplices. Police on Thursday pressed charges against Erfan Salim, son of Awami League MP Haji Md Selim, in a case filed over the murder attempt on an officer of the navy in Dhaka.

Sub Inspector Mominul Haq, who is also the investigation officer of the case, submitted a charge-sheet naming three more people, including Erfan’s bodyguard Jahidul Mollah, in the court of Dhaka’s Chief Metropolitan Magistrate, reports Bangla Tribune. On October 25 last year, a video of Lieutenant Wasif Ahmad Khan of Bangladesh Navy demanding justice in public went viral on social media after he was assaulted by Erfan, his bodyguard, chauffeur and a few accomplices. The attack took place at the Kalabagan bus stop area at around 7:45pm, when the military officer protested after his motorcycle was hit by Erfan’s car, which had a parliament sticker on it.

ছড়িয়ে দিনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আপনার মতামত জানানঃ