Trial Run

পৃথক দুই দুর্ঘটনায় নিহত ৫ আহত ৭

ট্রাকের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৪ যাত্রী নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও তিনজন। দুর্ঘটনায় মাইক্রোবাসটি ভস্মীভূত হয়ে যায়। আজ বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সিলেটের গোলাপগঞ্জের হেতিমগঞ্জ পশ্চিম বাজার এলাকার মোল্লাগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এদিকে মালবাহী ট্রেনের সঙ্গে সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে একজন নিহত ও আরও তিন জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আজ বুধবার ভোর ৬টা ৫০ মিনিটে কুমিল্লা রেলস্টেশন সংলগ্ন শাসনগাছা রেলক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ট্রাকের ধাক্কায় মাইক্রোবাস বিস্ফোরনের ঘটনায় জানা যায়, ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে মাইক্রোবাসটি সিলেট থেকে জকিগঞ্জ যাচ্ছিল। পথে হেতিমগঞ্জে পশ্চিমবাজার মোল্লাগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে ওই মাইক্রোবাসটিকে একটি ট্রাক পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে মাইক্রোবাসটির গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ধরে যায়। এতে দগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই তিনজন প্রাণ হারান। হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও একজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় দগ্ধ হয়েছেন অন্তত তিনজন। তাদের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ জানান, ট্রাক-মাইক্রোবাসের সংঘর্ষের পরপরই মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন লেগে যায়। এতে এখন পর্যন্ত ৪ জন মারা গেছেন। আরও ৩ জন যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে দমকল বাহিনী ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে হতাহতদের উদ্ধার করে। পরে তাদেরকে সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে ট্রেনের সঙ্গে অটোরিক্সা সংঘর্ষ ঘটনায় জানা যায়, সকাল পৌনে ৭টার দিকে একটি যাত্রীবাহী সিএনজিচালিত অটোরিকশা কুমিল্লা মহানগরীর শাসনগাছা রেলগেট এলাকায় পৌঁছালে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী মালবাহী ট্রেনের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এ দুর্ঘটনার পর প্রায় ৫০০ মিটার দূরে গিয়ে ট্রেনটি থেকে যায়। তবে গেটম্যানের সংকেত উপেক্ষা করে অটোরিকশাচালক দ্রুত রেলগেট পার হওয়ার চেষ্টা করলে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান তারা।

গুরুতর আহতাবস্থায় অটোরিকশাচালক ও তিন যাত্রীকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা অটোরিকশাযাত্রী ফরিদকে (৭০) মৃত ঘোষণা করেন। আহতরা হলেন- নিহতের স্ত্রী পেয়ারা বেগম (৫৫) ও মেয়ে আঁখি আক্তার (১৬) ও নিহতের ভাগিনা সিএনজিচালক রাকিবুল (৩০)।

আহতরা জানান, নিহত ফরিদ ডাক্তার দেখানোর জন্য কুমিল্লায় আসছিলেন। তার বাড়ি জেলার দেবিদ্বার উপজেলার গজারিয়া গ্রামে।

কুমিল্লা রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত কর্মকর্তা মো. ইসমাইল হোসেন সিরাজী বলেন, ঢাকাগামী একটি মালবাহী ট্রেন শাসনগাছা রেলওয়ে লেভেল ক্রসিং অতিক্রমের সময় একটি সিএনজি রাস্তা পাড়াপাড় করতে গেলে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দ্রুত স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আমরা আহত চারজনকে কুমেক হাসপাতালে পাঠাই। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক একজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এসডাব্লিউ/এমএন/কেএইচ/১২৪৫

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares