Trial Run

লেজ গুটালেন মেয়র তাপস!

ছবি : জুমবাংলা

অবশেষে ডিএসসিসির সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে করা মানহানি মামলা তুলে নিচ্ছেন বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। আজ মঙ্গলবার(১২জানু) দুপুরে নগর ভবনে সাকরাইন উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নিজের আইনজীবীদের মামলা তুলে নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। এতে সংশ্লিষ্ট মহল মনে করছেন, তাপসের বিরুদ্ধে আনা সাঈদ খোকনের দুর্নীতির অভিযোগে কেঁচোর গর্ত থেকে সাপ বেরিয়ে আসার আতঙ্কে মেয়র এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

নগর ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, আমি মামলাগুলোর বিষয়ে জড়িত নই। দুই আইনজীবী এগুলোর আবেদন করেছেন। আমি তাদের অনুরোধ করব, মামলার আবেদনগুলো যেন প্রত্যাহার করা হয়।

মেয়র তাপস বলেন, আমার বিষয়ে সাঈদ খোকনের মন্তব্য ‘মানহানিকর’। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে পরে।

তিনি জানান, আগামীকাল থেকে তিনি এ বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমে আর কথা বলবেন না। কারণ বিষয়টি ইতোমধ্যে একটি ‘প্রহসনে’ রূপান্তরিত হয়েছে।

ফজলে নূর তাপস বলেন, দেশের মানুষ বিষয়টাকে হাস্যকর হিসেবে নিচ্ছে। এর আগেই আমি বলেছি। একটি দায়িত্ববান পদে থাকলে অনেকেই অনেক কথা বলবে। গতকাল যে মামলা করা হয়েছে, তার সঙ্গে আমি জড়িত নই। অতি উৎসাহী কিছু লোক এ মামলা করেছে। আমি তাদের মামলা প্রত্যাহারের জন্য বলবো।

গত শনিবার রাজধানীতে এক মানববন্ধনে শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন। ওই সময় তিনি অভিযোগ করেন, তাপস দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের শত শত কোটি টাকা তার নিজ মালিকানাধীন মধুমতি ব্যাংকে স্থানান্তরিত করেছেন। এছাড়া শত শত কোটি টাকা বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা লাভ হিসেবে গ্রহণ করছেন।

সাঈদ খোকন আরো বলেন, তাপস মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে গলাবাজি করে চলেছেন। অন্যদিকে অর্থের অভাবে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের গরিব কর্মচারীরা মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না। সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প অর্থের অভাবে বন্ধ হয়ে গেছে।

এরপর সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে বর্তমান মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসকে নিয়ে মানহানিকর বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে সোমবার (১১ জানুয়ারি) ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে দুটি মামলার আবেদন করা হয়। আদলত আগামী ১৯ জানুয়ারি মামলা দুটির আদেশের দিন ধার্য করেছেন। একটি মামলার বাদী কাজী আনিসুর রহমান। অন্য মামলার বাদী অ্যাডভোকেট মো. সারোয়ার আলম।

মামলার পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের মানসম্মানের ‘বাজারমূল্য’ জানতে চেয়ে গণমাধ্যমে বিবৃতি পাঠিয়েছেন ডিএসসিসির সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করা হবে—বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের এমন মন্তব্য প্রসঙ্গে সাবেক মেয়র ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, তাপসের মানসম্মানের বাজারমূল্য কত? মামলার পূর্ণাঙ্গ বিবরণী পাওয়ার পর সেটা আমি জানতে পারব। এ মামলার আইনি মোকাবিলার পাশাপাশি রাজপথে দেনা–পাওনার হিসাব হবে, ইনশা আল্লাহ।’

এরপরই আজ নগর ভবনে সাকরাইন উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নিজের আইনজীবীদের মামলা তুলে নেওয়ার আহ্বান জানান বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, তাপসের বিরুদ্ধে সাঈদ খোকনের হুমকিতে নড়েচড়ে বসেছেন মেয়র তাপস। এতে কেঁচোর গর্ত থেকে অজগর বেরিয়ে আসতে পারে বলে মেয়র তাপসের আশঙ্কা বলে মনে করেন তারা। তারা মনে করেন, তাপসের বিরুদ্ধে আনা দুর্নীতির অভিযোগ এবং মেয়র পদ নিয়ে সাবেক মেয়রের হুমকিতে বর্তমান মেয়র বড় কিছু হবার আতঙ্ক দেখেছেন বলে পাশ কেটে সরে যেতে চাইছেন। বড় কোনো দুর্ঘটনার টের পেয়েই হয়তো মেয়র সাবেক মেয়রের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগে মামলা তুলে নিতে চাইছেন। এবিষয়ে সংশ্লিষ্টরা জানান, মেয়র তাপসের বিরুদ্ধে আনা সাঈদ খোকনের দুর্নীতির অভিযোগ দুদকের খতিয়ে দেখা উচিত। একইসাথে দুজনের দুর্নীতির বিষয়ে দুদকের নীরবতা যাপনেও আপত্তি জানিয়েছেন তারা। তারা মনে করেন, দুই মেয়রের দুর্নীতির ব্যাপারে মিডিয়ার মাধ্যমে ইতোমধ্যে চাউর হলেও এক্ষেত্রে দুদকের কোনো পদক্ষেপ লক্ষ করা যাচ্ছে না। দুই মেয়রের দুর্নীতির বিষয়ে দুদককে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তারা।

এসডাব্লিউ/এমএন/কেএইচ/১৫৫৪

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares