Trial Run

‘সব ধর্মের মানুষ সমান অধিকার নিয়ে চলবে’ : প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশে সব ধর্মের মানুষ সমান অধিকার নিয়ে চলবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার(১৬ই ডিসেম্বর) বিকেলে ‘মহান বিজয় দিবস-২০২০’ উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত ভার্চ্যুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। সভায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা বঙ্গবন্ধু এভিনিউর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন।

দেশবাসীকে মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক চেতনায় দৃঢ় থাকার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িকতার দেশ। সব ধর্মের মানুষ এদেশের মাটিতে সমান অধিকার নিয়ে চলবে।

তিনি বলেন, মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সবাই রক্ত ঢেলে দিয়ে এ দেশকে স্বাধীন করেছে। আমরা মুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ বলে অন্য ধর্মের মানুষকে অবহেলা করব, এটা কোনোভাবেই উচিত নয়। পবিত্র ইসলাম ধর্মও সেই শিক্ষা দেয়নি।

তিনি আরো বলেন, সবার ধর্ম পালনের স্বাধীনতা রয়েছে এবং থাকবে। এই দেশের মাটিতে ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবাই সমান অধিকার নিয়েই বসবাস করবে।

যেকোনো পরিস্থিতি সহনশীলতার সঙ্গে মোকাবিলা করার জন্য দলীয় নেতাকর্মী ও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাইকে যেকোন পরিস্থিতি সহনশীলতার সাথে মোকাবিলা করতে হবে। কে কী বলল না বলল সেগুলো শোনার থেকে দেশের জন্য কতটুকু করতে পারলাম সে চিন্তা করতে হবে। তাহলে আমরা সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারব, সঠিক কাজটি করতে পারব। যদিও আমরা সেভাবেই কাজ করে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭১ সালের মহান বিজয়ের প্রাক্কালে আমাদের বুদ্ধিজীবীদের হত্যার ষড়যন্ত্র হয়েছিল, যাতে বাংলাদেশকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য জ্ঞানী–গুণী কেউ না থাকে। ঠিক যুদ্ধ শুরুর পর থেকে, বিশেষ করে ৮ ও ৯ ডিসেম্বর ব্যাপকভাবে বুদ্ধিজীবী হত্যা চলে এবং আমরা ১৪ ডিসেম্বর দিনটিকে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস হিসেবে পালন করি।’

এ সময় কোভিড-১৯ বিষয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর পাশাপাশি আওয়ামী লীগকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে দলের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘আমি সবাইকে অনুরোধ করব, আমাদের সংগঠনটাকে শক্তিশালী করতে হবে। জাতির পিতার আদর্শকে মানুষের কাছে নিয়ে যেতে হবে।’

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা মতিয়া চৌধুরী, আব্দুর রাজ্জাক, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, জাহাঙ্গীর কবির নানক, হাছান মাহমুদ সহ আরো অনেকে।

এসডব্লিউ/কহো/০২৪০

ছড়িয়ে দিনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আপনার মতামত জানানঃ