Trial Run

আইনপ্রয়োগের চিত্র ও গণমাধ্যম: ১৯ জানুয়ারি ২০২১

স্টেটওয়াচ রিসার্চ নেটওয়ার্ক কাজ করছে বাংলাদেশে আইনপ্রয়োগের সার্বিক চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সংক্রান্ত বাস্তবতা নিয়ে। এর অংশ হিসেবে স্টেটওয়াচ নিউজে আমরা প্রতিদিনকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত খবরাখবরগুলো সংক্ষেপে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছি। প্রতিদিন নিম্নোক্ত মাধ্যমসমূহ থেকে সংবাদগুলো সংগ্রহ ও তা নথিবদ্ধ করছে আমাদের কর্মীরা: প্রথম আলো, কালের কণ্ঠ, যুগান্তর, সমকাল, নয়া দিগন্ত, ইত্তেফাক, দেশ রূপান্তর, ডেইলি স্টার, নিউ এজ, দ্য ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস, বাংলা ট্রিবিউন, বিডিনিউজ২৪ ডটকম, আমাদের সময়, মানবজমিন। আমরা আশা করি, এই প্রতিবেদন নিয়মিত প্রকাশের মাধ্যমে জনগণের তথ্যপ্রাপ্তির অধিকার আরো শক্তিশালী হবে।

১৯ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার, ৫ মাঘ ১৪২৭, পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত নির্বাচিত খবরের সার-সংক্ষেপ

কোভিড-১৯: ঘোষণার সেই টাকা চান ১০ হাজার পুলিশ সদস্য

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর মহামারী মোকাবেলায় সম্মুখ সারিতে থাকা সরকারি চাকুরিজীবীরা আক্রান্ত হলে ক্ষতিপূরণের যে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল, সেই অর্থ চেয়ে আবেদন করেছেন কোভিড-১৯ আক্রান্ত প্রায় ১০ হাজার পুলিশ সদস্য। সম্প্রতি জমা পড়া আবেদনগুলোর বিষয়ে মতামত চেয়ে অর্থ বিভাগে চিঠি দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ (পুলিশ-২) থেকে পাঠানো এ সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়, “পুলিশ বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিটে কর্মরত পুলিশ সদস্যরা সরকারি দায়িত্ব পালনকালে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। সরকার ঘোষিত পরিপত্রে শর্তানুযায়ী দায়িত্ব পালনকালে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হলে এককালীন ক্ষতিপূরণ প্রদানের সিদ্ধান্ত থাকায় আক্রান্ত প্রায় ১০ (দশ) হাজার পুলিশ সদস্য কর্তৃক ক্ষতিপূরণ প্রাপ্তির লক্ষ্যে পুলিশ অধিদপ্তরের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট কাগজপত্রসহ আবেদনপত্র দাখিল করেন।”সরকার ঘোষিত ক্ষতিপূরণের অর্থ প্রাপ্তির জন্য দাখিলকৃত এসব আবেদন অর্থ বিভাগে পাঠানো হবে কি না, সে বিষয়ে মতামত চেয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গত বছরের প্রথম দিকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর দেশে ফিরতে শুরু করেন প্রবাসীরা। এরমধ্যে ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর রোগটি নিয়ে ব্যাপক আতঙ্ক দেখা দেয়। দেশের বিভিন্ন জায়গায় আসা প্রবাসীদের ১৪ দিনের ‘হোম কোয়ারেন্টিন’ নিশ্চিতে জোর তৎপরতা চালায় পুলিশ। বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিদেশফেরতদের গতিবিধির ওপর নজর রাখেন তারা। এর মধ্যে গত বছর ২৩ এপ্রিল সরকারি এক ঘোষণায় করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সম্মুখ সারিতে থাকা সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এই রোগে আক্রান্ত হলে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলা হয়।

 

প্রেমিকার সঙ্গে রাত্রিযাপন করতে গিয়ে ধরা, পুলিশ কর্মকর্তা ক্লোজড

কালের কন্ঠ
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

নওগাঁর বদলগাছীতে প্রেমিকার সঙ্গে রাত্রিযাপনকালে গ্রামবাসী কর্তৃক আটক পুলিশ কর্মকর্তাকে নওগাঁ পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। গত রবিবার দিবাগত রাতে উপজেলার কদমগাছী গ্রামে প্রেমিকার ঘর থেকে তাকে আটক করা হয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বদলগাছী থানার এসআই মো. আরিফুল ইসলাম জয়পুরহাট জেলার জামালগঞ্জ এলাকার একটি মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। প্রেমিকাকে নিয়ে রবিবার দিবাগত রাতে কদমগাছী গ্রামের একটি বাড়িতে রাত্রিযাপনের জন্য যায় তিনি। এ সময় গ্রামবাসী তাদেরকে ওই ঘরে আটকে রেখে। খবর পেয়ে থানান ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চৌধুরী জোবায়ের আহম্মেদ ফোর্স নিয়ে এসআই আরিফুলকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় সোমবার এসআই মো. আরিফুল ইসলামকে থানা থেকে ক্লোজড করে নওগাঁ পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়েছে।

 

‘বাবা পুলিশ হলে সন্তান যেন গর্ব করে’

যুগান্তর
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

রাজশাহী মহানগর পুলিশ (আরএমপি) কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেছেন, পুলিশ সদস্যদের এমনভাবে কাজ করতে হবে যেন তার সন্তান গর্ব করে বলে আমার বাবা পুলিশ। সবাইকে আরও বেশি সচেতন ও দায়িত্ববান হতে হবে, যেন পরবর্তী প্রজন্ম গর্ব করে বলতে পারে আমার বাবা ছিলেন পুলিশ।

সোমবার সকালে আরএমপির ট্রেনিং স্কুলে ষষ্ঠ ব্যাচের অস্ত্রচালনা বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

পুলিশ কমিশনার বলেন, পুলিশের দীর্ঘদিনের দাবি হালকা আধুনিক অস্ত্র। এ দাবি পূর্ণ হচ্ছে। সেই অস্ত্রের যথাযথ আইনসঙ্গত ব্যবহারের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করতে হবে। এজন্য প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- আরএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (লজিস্টিক) সাইফুদ্দিন শাহীন, উপ-পুলিশ কমিশনার (পিওএম) মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ফোর্স), মোহাম্মদ রকিবুল ইসলাম হাসান ইবনে রহমান প্রমুখ। ছয় দিনের এই কোর্সে ৫০ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করছেন।

 

বিদ্রোহী প্রার্থীর নারীকর্মীদের লাঞ্ছনা, পুলিশ বলছে ‘স্বাভাবিক’!

জাগো নিউজ
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনের দিনক্ষণ যতই এগিয়ে আসছে ততই সংঘাত-সংঘর্ষ বাড়ছে। অধিকাংশ অভিযোগ আসছে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

এবার সরকারি দল সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থক ও কর্মীদের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর নারীকর্মীদের লাঞ্ছনা করার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেল পৌনে ৩টায় নগরের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মোহাম্মদনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনাকে স্বাভাবিক ঘটনা বলছে পুলিশ। আহতদের মধ্যে তিনজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- হোসনে আরা পারুল, নুরতাজ বেগম, সাহিনা বেগম। লাঞ্ছিত নির্বাচনকর্মী হোসনে আরা পারুল জাগো নিউজকে বলেন, বিকেলে বায়েজিদ থানার মোহাম্মদনগর এলাকায় কাউন্সিলর প্রার্থী মো. এয়াকুবের (মিষ্টি কুমড়া) সমর্থনে আমরা প্রচারণা চালাচ্ছিলাম। কিন্তু আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোবারক আলীর সমর্থকরা আমাদের গাড়িচালককে মারধর করে এবং আমিসহ ৯ নারীকর্মীকে গালিগালাজ ও লাঞ্ছিত করে। তারা বারবার মিষ্টি কুমড়ার প্রচারণা চালানো যাবে না বলে হুমকি দিতে থাকে। এ বিষয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী মো. এয়াকুব জাগো নিউজকে বলেন, আমি প্রচারণা শুরুর পর থেকে মোহাম্মদনগর, শান্তিনগর, হিলভিউ, আলীনগর ও আমিন কলোনি এলাকায় প্রচারণা চালাতে পারছি না। আরেক কাউন্সিলর প্রার্থী মোবারক আলীর লোকজন সবসময় নানাভাবে বাধা দিচ্ছে। আজ আমার নারীকর্মীদের লাঞ্ছিত করেছে।

তিনি বলেন, বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি। আগামীকাল নির্বাচন কমিশনারকে লিখিতভাবে অভিযোগ দেব।

জানতে চাইলে বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রিটন সরকার জাগো নিউজকে বলেন, ‘এসব ছোটখাটো ব্যাপার। এ নির্বাচনে স্বাভাবিকভাবে যা হয় তা হয়েছে আরকি।’

 

বরখাস্ত হওয়ার পরও ইয়াবা ব্যবসা করে যাচ্ছিলেন পুলিশের এসআই

আমাদের সময়
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

সিলেট নগরীর সুবিদবাজার থেকে ইয়াবাসহ মো. রোকনউদ্দিন (৪২) নামে পুলিশের এক উপপরিদর্শককে (এসআই) আটক করা হয়েছে। এসময় তার সঙ্গে থাকা এক নারীসহ আরও তিনজনকে আটক করে পুলিশ। আজ সোমবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে এ চারজনকে আটক করা হয়। আটক এসআই মো. রোকনউদ্দিন এর আগে মাদক ও শিশুদের দিয়ে পতিতাবৃত্তি করানোর অভিযোগ থেকেই সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন।

আটককৃতরা হলেন, সাময়িক বরখাস্তকৃত এসআই মো. রোকনউদ্দিন (৪২), রীমা (৪২), জসিম উদ্দিন (২৪) ও ফাহিম শাহরিয়ার (৪১)। রোকনউদ্দিন আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নে (এপিবিএন) কাজ করতেন।

পুলিশ জানিয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সুবিদবাজারের চন্দ্রিমা আবাসিক এলাকার ব্লক-এ’র ৩ নম্বর খাঁন মঞ্জিল বাসায় কোতোয়ালী থানার সহকারী কমিশনার মো. সামসুদ্দিন সালেহ আহমেদ ও ওসি এসএম আবু ফরহাদের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়।

 

অবশেষে জামিন পেলেন সাংবাদিক সুলতান

সমকাল
বিভাগ: গণমাধ্যম

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুরের দায়ের করা মামলার আসামি সাংবাদিক সুলতান আহমেদ অবশেষে জামিনে ছাড়া পেলেন। নেত্রকোনা সদর আদালতে তার পক্ষে জামিন প্রার্থনা করলে রোববার সন্ধ্যায় বিচারক জামিন মঞ্জুর করেন। সুলতান আহমেদ পুলিশের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ তোলেন।

নেত্রকোনা পৌরসভার কুরপাড় এলাকার বাসিন্দা কাস্টমস কর্মকর্তা ইসকান্দর মিয়ার মেয়ে রাজিয়া সুলতানা লাকীর সঙ্গে প্রেম ও পরিচয়ের সুবাদে ২০০৬ সালে সুলতান আহমেদের বিয়ে হয়। পরে লাকীর পরিবার বিয়েটি মেনে না নেওয়ায় তাদের জোর করে ছাড়াছাড়ি করানো হয়। দীর্ঘ ১৫ বছর পর গত বছরের ২৩ অক্টোবর ফের সুলতান আহমেদের সঙ্গে বারহাট্টার বাউসীতে কাজির মাধ্যমে উভয়ের সম্মতিতে বিয়ের কাজ সম্পন্ন হয়। আবারও মেয়েকে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য চেষ্টা শুরু করেন ইসকান্দর মিয়া। বিভিন্ন লোকের মাধ্যমে তাকে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করেন। অনেক চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে লাকীর ভাই আরিফুল ইসলাম বাদী হয়ে গত বছরের ২৬ নভেম্বর সুলতান আহমেদের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ২-৩ জনের বিরুদ্ধে নেত্রকোনা মডেল থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। প্রতিপক্ষের হামলা ও পুলিশি হয়রানির ভয়ে মামলা দায়েরের পর স্ত্রী রাজিয়া সুলতানাকে নিয়ে নিজ বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান সাংবাদিক সুলতান। অন্যদিকে রাজিয়া সুলতানা লাকী জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ওই বছরের ৯ ডিসেম্বর ঢাকার মুগদা থানায় ৫০৯ নং জিডি করেন। গত শুক্রবার ঢাকার কারওয়ান বাজার এলাকা থেকে সুলতানকে গ্রেপ্তার ও তার স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা লাকীকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ। রোববার সুলতান আহমেদের স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা লাকী আদালতে হাজির হতে গেলে বাদী ও তার লোকজন কয়েক দফা বাধা প্রদান করে। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তিও হয়। শেষে রাজিয়া সুলতানা আদালতে হাজির হয়ে সাংবাদিক সুলতান আহমেদের পক্ষে সাক্ষ্য প্রদান করেন। তার পক্ষে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক জামিন মঞ্জুর করেন।

 

বণিক বার্তা সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
বিভাগ: গণমাধ্যম

কক্সবাজারে একটি হোটেল নিয়ে ‘বানোয়াট, মানহানিকর ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ সংবাদ প্রকাশের অভিযোগে ঢাকার দৈনিক বণিক বার্তার সম্পাদকের বিরুদ্ধে ময়মনসিংহের আদালতে মানহানির মামলা হয়েছে। কক্সবাজারে পাঁচতারকা হোটেল রয়েল টিউলিপ সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা লিমিটেডের পক্ষে প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. মশিউর রহমান সোমবার ময়মনসিংহের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা করেন।

মামলায় বণিক বার্তা সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদের সঙ্গে প্রতিবেদক মেহেদী হাসান রাহাতকেও আসামি করা হয়েছে। পরে শুনানি নিয়ে বিচারক মোহাম্মদ আব্দুল হাই দুইজনকে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেছেন বলে জানিয়েছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী পীযূষ কান্তি সরকার।

গত ১৩ জানুয়ারি বণিক বার্তার প্রথম পাতায় ‘রয়েল টিউলিপে বিনিয়োগ করে বিপাকে আইসিবি’ শিরোনামে একটি খবর প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, রাষ্ট্রায়ত্ত বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ লিমিটেড (আইসিবি) ২০১৭ সালে বন্ডের মাধ্যমে রয়েল টিউলিপ নামে পরিচিত সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা লিমিটেডে ৩২৫ কোটি টাকা বিনিয়োগ করে।

এ অর্থ ব্যাংকের ঋণ পরিশোধের পাশাপাশি হোটেলটির নির্মাণকাজে ব্যয় করা হয়। আইসিবির কাছ থেকে অর্থ নেয়ার দুই বছর পর প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকেও তহবিল সংগ্রহ করে হোটেলটি। এভাবে বিভিন্ন উৎস থেকে অর্থ নিয়ে ব্যবসা করলেও আইসিবিকে কিস্তি ও সুদ পরিশোধ করছে না প্রতিষ্ঠানটি। রয়েল টিউলিপের বন্ড কিনে আরো বিপাকে পড়েছে তারল্য সংকটে থাকা আইসিবি।

ছড়িয়ে দিনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আপনার মতামত জানানঃ