Trial Run

আইনপ্রয়োগের চিত্র ও গণমাধ্যম: ২৮ ডিসেম্বর ২০২০

স্টেটওয়াচ রিসার্চ নেটওয়ার্ক কাজ করছে বাংলাদেশে আইনপ্রয়োগের সার্বিক চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সংক্রান্ত বাস্তবতা নিয়ে। এর অংশ হিসেবে স্টেটওয়াচ নিউজে আমরা প্রতিদিনকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত খবরাখবরগুলো সংক্ষেপে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছি। প্রতিদিন নিম্নোক্ত মাধ্যমসমূহ থেকে সংবাদগুলো সংগ্রহ ও তা নথিবদ্ধ করছে আমাদের কর্মীরা: প্রথম আলো, কালের কণ্ঠ, যুগান্তর, সমকাল, নয়া দিগন্ত, ইত্তেফাক, দেশ রূপান্তর, ডেইলি স্টার, নিউ এজ, দ্য ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস, বাংলা ট্রিবিউন, বিডিনিউজ২৪ ডটকম, আমাদের সময়, মানবজমিন। আমরা আশা করি, এই প্রতিবেদন নিয়মিত প্রকাশের মাধ্যমে জনগণের তথ্যপ্রাপ্তির অধিকার আরো শক্তিশালী হবে।

২৮ ডিসেম্বর ২০২০, সোমবার, ১৩ পৌষ ১৪২৭, পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত নির্বাচিত খবরের সার-সংক্ষেপ

পুলিশে ডোপ টেস্টের প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে : আইজিপি

প্রথম আলো
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে রাজশাহীতে পুলিশের অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টার, কিশোর গ্যাং ডিজিটাল তথ্যভান্ডার ও ‘হ্যালো আরএমপি’ অ্যাপের কার্যক্রম চালু হয়েছে। গতকাল রোববার এসব কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ।

উদ্বোধন শেষে বেলা সাড়ে ১১টায় নগরের সিঅ্যান্ডবি মোড়ে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন আইজিপি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আরএমপির পুলিশ কমিশনার মো. আবু কালাম সিদ্দিক ও রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি মো. আবদুল বাতেনসহ রাজশাহী মহানগর ও রাজশাহী রেঞ্জের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

পুলিশ সদস্যদের ডোপ টেস্টের বিষয়টি স্পষ্ট করতে গিয়ে বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘আমাদের বাহিনীতে ডোপ টেস্ট কেবল শুরু করেছি। এটা সব স্তরের জন্য প্রযোজ্য। এই ডোপ টেস্টের প্রক্রিয়াটি অব্যাহত থাকবে। পুলিশ বাহিনীতে মাদকসেবীদের স্থান নেই।’

পুলিশি হেফাজতে রায়হান হত্যা
খুঁজে পাওয়া গেল না সেই ‘সিনিয়র অফিসারকে’

প্রথম আলো
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

সিলেটের বন্দরবাজারে পুলিশ ফাঁড়িতে রায়হান আহমদকে হত্যা ঘটনার তদন্ত শেষ পর্যায়ে বলে জানিয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। আলোচিত এ ঘটনায় বরখাস্ত উপপরিদর্শক (এসআই) আকবর হোসেন ভূঁঞাকে মূল অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র তৈরি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। আকবর ধরা পড়ার আগে এ ঘটনায় গ্রেপ্তার পুলিশের তিনজন সদস্য, রায়হানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা এক ব্যক্তি ও আকবরকে পালাতে সহায়তা করা একজনসহ ছয়জনকে অভিযোগপত্রে আসামি করার কথা জানিয়েছেন তদন্তসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

তবে ধরা পড়ার পর এসআই আকবর বলেছিলেন, এক ‘সিনিয়র অফিসারের’ প্ররোচনায় তিনি পালিয়েছিলেন। তবে তদন্তে পুলিশ তাঁর পালানোর পেছনে নিজেদের কোনো জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার সংশ্লিষ্টতা পায়নি।

পিবিআই সিলেটের পুলিশ সুপার মুহাম্মদ খালেদ উজ জামান প্রথম আলোকে বলেন, ভিসেরা প্রতিবেদন হাতে আসার পর ঘটনাটি হত্যা বলে প্রতীয়মান হয়। মামলার তদন্ত প্রায় শেষ। আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করতে তদন্ত কার্যক্রম গুছিয়ে আনা হচ্ছে। ছোট ছোট বিষয়গুলো পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে। আশা করা হচ্ছে, সামনের বছরের শুরুতেই প্রতিবেদন দাখিল করা যাবে।

 

কারাগারে অবৈধ মাদক–ওষুধ সরবরাহ বন্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ

প্রথম আলো
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

কারা অভ্যন্তরে সব ধরনের অবৈধ মাদকদ্রব্য ও ওষুধ সরবরাহ বন্ধে যথাযথ পদক্ষেপ ও ব্যবস্থা নিতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এই নির্দেশসহ বিচারাধীন মামলায় হাজতি এবং দণ্ডিত আসামিদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য রেজিস্ট্রারভুক্ত করতে ও হলফনামা বিষয়ে কারা কর্তৃপক্ষের প্রতি কয়েক দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ওকালতনামায় ডেপুটি জেলারের সই ছাড়া এক আসামির জামিনে মুক্তি পাওয়ার বিষয়টি সামনে আসার প্রেক্ষাপটে গত ১৯ অক্টোবর বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার এবং বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই আদেশ দেন। গতকাল রোববার আদেশের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশিত হয়।  আরেক নির্দেশনায় বলা হয়, দর্শনার্থীদের দেহ ও পোশাক কঠোরভাবে তল্লাশি করতে হবে। দর্শনার্থীর কাছে কোনো মাদকদ্রব্য, ওষুধ এবং নিষিদ্ধ কিছু পাওয়া গেলে আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ও যথাযথ আইনি পদক্ষেপ নিতে হবে।

 

পুলিশের কাছ থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামির পলায়ন

প্রথম আলো
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় পুলিশের কাছ থেকে পালিয়ে গেছেন গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত এক আসামি। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদরের আমতলী বাজারে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি আজ রোববার দুপুরে জানাজানি হয়। তবে বিকেল চারটা পর্যন্ত তাঁকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। পালিয়ে যাওয়া ওই আসামি নাম মো. পলাশ (৩০)। তিনি পলাশ উপজেলার আবদুল্লাহপুর গ্রামের হোসেন আহমেদের ছেলে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে কয়েক দিন আগে আদালতে মামলাটি করেন পলাশের স্ত্রী। সেই মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি পলাশ। বিজয়নগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) গোলাম জিলানী বলেন, আসামি পলাশ আমতলী বাজারে বসেছিলেন। তার হাতে ধরতে না ধরতেই ধাক্কা দিয়ে পলাশ পালিয়ে যান। তাঁর হাতে হাতকড়াও পরানো যায়নি। পরে তাঁকে খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান পাওয়া যায়নি।

 

কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগার উদ্বোধন

কালের কন্ঠ
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারগার (কেরানীগঞ্জ)-এ নারী বন্দিদের জন্য মহিলা কারাগার উদ্ধোধন করা হয়েছে। রবিবার সকালে ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান শেষে কারা মহাপরিদর্শক (আইজি-প্রিজনস) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মোমিনুর রহমান মামুন মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সারা দেশে চার হাজার নারী বন্দি রয়েছে। এ নারী কারাগারে ৩০০ জন নারীবন্দিকে রাখা যাবে। প্রয়োজনে এর থেকে বেশিও রাখা যাবে। করোনার কারণে কাশিমপুর কারাগার থেকে এখানে নারী বন্দি এখনও স্থানাস্তর করা হয়নি। এখনে নরী কয়েদিদেরও জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ব্যবস্থা হয়েছে পড়ালেখা করার। এটাকে কারাগার বলা যাবে না। নিজেকে শোধনাগার বলাও যেতে পারে।

 

পুলিশে মাদকসেবীর জায়গা নেই: আইজিপি

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

পুলিশ বাহিনীতে মাদকাসক্ত সদস্যদের কোনো জায়গা নেই বলে হুঁশিয়ার করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ। রোববার রাজশাহীতে এক অনুষ্ঠানে আইজিপি বেনজীর বলেন, “আমরা ঘর থেকে পরিছন্ন অভিযান শুরু করেছি। আমরা এই ব্যাপারে দৃঢ় প্রত্যয়ী। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।”

দুপুরে রাজশাহী মহানগর পুলিশের ‘হ্যালো আরএমপি অ্যাপ’, ‘অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টার’ ও ‘কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন আইজিপি।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের ‘হ্যালো আরএমপি অ্যাপ’, ‘অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টার’ ও ‘কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ’ উদ্বোধন করেন আইজিপি বেনজীর আহমেদরাজশাহী মহানগর পুলিশের ‘হ্যালো আরএমপি অ্যাপ’, ‘অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টার’ ও ‘কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ’ উদ্বোধন করেন আইজিপি বেনজীর আহমেদউদ্বোধন অনুষ্ঠানে বেনজীর বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

 

দুপুরে উচ্ছেদ বিকালে দখল, পুলিশ বক্সের বিষয়ে সিদ্ধান্ত পরে!

বাংলা ট্রিবিউন
বিভাগ: রাষ্ট্রীয় বাহিনী

রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউতে সাইকেল লেন থেকে অবৈধ পার্কিং উচ্ছেদের দুই ঘণ্টা পর আবার সেই লেন দখলে নিয়েছে তারা। তবে এখনও মাঝ লেন বরাবর যে ট্রাফিক পুলিশ বক্স রয়েছে। সেটা উচ্ছেদের বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেননি সংশ্লিষ্টরা। রবিবার (২৭ ডিসেম্বর) বেলা ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ডিএনসিসির মহাখালী অঞ্চলের (অঞ্চল-৩) আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ হোসেনের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে অবৈধ পার্কিংয়ের জন্য ১টি মাইক্রোবাস ও ১টি প্রাইভেটকার চালককে মোট ২ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া প্রায় শতাধিক ভাসমান দোকান উচ্ছেদ করা হয়। সংসদ সদস্য ভবন ২-এর সামনে সাইকেল লেনের ওপর পার্কিং করে আছে আবদুল মালেকের গাড়ি। দুপুরে উচ্ছেদের পর আবার বিকেলেই কেন সাইকেল লেন দখল করেছেন—এমন প্রশ্নে আবদুল মালেক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমি জানতামই না এটা সাইকেল কেন? এটা একজন পুলিশের এসপির গাড়ি। ভেতরে কাজে গেছেন। আমি জানলে রাখতাম না। আমি সরিয়ে নিচ্ছি।

দুপুরে উচ্ছেদের পর বিকালে আবার দখল। এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযানকারী এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আসলে মানুষ সচেতন না। আবার অনেকে জানেনও এটা সাইকেল লেন। আমরা এই অভিযান তিন দিন চালিয়ে যাবো। মাঝ লেন বরাবর ট্র্যাফিক পুলিশ বক্সের বিষয়ে জানতে চাইলে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, বক্সটা একটা সরকারি প্রতিষ্ঠানের কাজে জন্য ব্যবহার হচ্ছে। সিটি করপোরেশনের পক্ষে থেকে পুলিশের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবে। তারপর আমরা এই ট্রাফিক পুলিশ বক্স সাইকেল লেন থেকে উচ্ছেদ করবো।

সিলেটে সাংবাদিকের ওপর হামলা, আটক ২

প্রথম আলো
বিভাগ: গণমাধ্যম

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আইয়ের সিলেট প্রতিনিধি সাদিকুর রহমান সাকির ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। আজ রোববার বেলা দুইটার দিকে নগরের গোয়াইপাড়া এলাকায় ওই সাংবাদিকের বাসার ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে দুজনকে আটক করে।

সাদিকুরের পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে সাদিকুরের ওপর স্থানীয় কামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে কয়েকজন হামলা চালান। হামলায় সাদিকুরের নাক ও ঠোঁট ফেটে রক্তক্ষরণ হয়। আহত অবস্থায় তাঁকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে ওই সাংবাদিকের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন। সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) বি এম আশরাফ উল্লাহ প্রথম আলোকে বলেন, হামলার ঘটনায় বিমানবন্দর থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। হামলার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে কামাল ও টেংকু নামের দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

 

মোটরসাইকেলে চলাচলের অনুমোদন পেলেন সাংবাদিকেরা

প্রথম আলো
বিভাগ: গনমাধ্যম

চুয়াডাঙ্গায় কর্মরত সাংবাদিকেরা অবশেষে পৌরসভা নির্বাচনের খবর সংগ্রহের জন্য মোটরসাইকেল ব্যবহারের অনুমোদন পেয়েছেন। আজ রোববার রাত নয়টার দিকে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তারেক আহমেদ মোটরসাইকেল চলাচলের জন্য সাংবাদিকদের হাতে স্টিকার তুলে দেন। এর আগে তিনি (রিটার্নিং কর্মকর্তা) নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের জনসংযোগ অধিশাখার পরিচালক (জনসংযোগ) এস এম আসাদুজ্জামানের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেন।

২২ ডিসেম্বর বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের জনসংযোগ অধিশাখার পরিচালক স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে বলা হয়, মোটরসাইকেল ব্যবহারের জন্য কোনো স্টিকার ইস্যু করা হবে না। এতে চুয়াডাঙ্গায় কর্মরত সাংবাদিকেরা বিপাকে পড়েন।

বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকেরা আজ রাতে রিটার্নিং কর্মকর্তার সঙ্গে দেখা করেন এবং মোটরসাইকেল স্টিকারের বিষয়টি পুনর্বিবেচনার জন্য বলেন। পরে রিটার্নিং কর্মকর্তা নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে যোগাযোগ করে স্টিকার ব্যবহারের অনুমোদন দেন।

 

প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে খুবি কর্তৃপক্ষ

কালের কন্ঠ
বিভাগ: গণমাধ্যম

কালের কণ্ঠে গত ২৫ ডিসেম্বর ‘পছন্দের প্রার্থীর চাকরি নিশ্চিতের চেষ্টা ভিসির!’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের ব্যাখ্যা পাঠিয়েছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক এস এম আতিয়ার রহমান এই ব্যাখ্যা পাঠান। তাতে বলা হয়, ২০০৩ সালে ৯৮তম সিন্ডিকেট সভায় যে নীতিমালা অনুমোদিত হয়, সেখানে অভ্যন্তরীণ প্রার্থীদের নিয়োগের ক্ষেত্রে তিনটি শর্ত শিথিলের বিষয় অন্তর্ভুক্ত ছিল; কিন্তু বর্তমান প্রশাসনের আমলে ২০১৩ সালে ১৬৭তম সিন্ডিকেট সভায় ওই সুযোগ সীমিত করা হয়। এ ছাড়া নবম গ্রেডে নিয়োগ প্রার্থীদের বেলায় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পাসের ক্ষেত্রে দুটি দ্বিতীয় শ্রেণির স্থলে বর্তমান নিয়োগ নীতিমালায় কমপক্ষে একটি প্রথম শ্রেণি অন্তর্ভুক্ত করা হয়। তা ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক পরিসর বৃদ্ধি পাওয়ায় চতুর্থ শ্রেণির ঝাড়ুদার, নিরাপত্তা প্রহরী, অফিস সহায়ক, ল্যাব অ্যাটেনডেন্টের মতো কিছুসংখ্যক পদে কিছু লোককে বিভিন্ন সময় মাস্টাররোল ও থোক ভাতায় কাজ দেওয়া হয়। এমন অনেক চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী ১০-১৫ বছর ধরে কাজ করলেও পদের সীমাবদ্ধতার কারণে তাঁদের স্থায়ী নিয়োগ দেওয়া যায়নি। এর পরিপ্রেক্ষিতে ইউজিসির কাছে বিষয়টি উল্লেখ করে পদ চাওয়া হলে সম্প্রতি কিছু পদ বরাদ্দ এবং সেখানে যাঁরা দীর্ঘদিন ধরে কর্মরত, তাঁদের নিয়মিত করার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

No place for drug addicts in police
IGP says at Rajshahi event

The Daily Star

Catagory: State Force

Inspector General of Police Benazir Ahmed was speaking before 3,000 police members at Rajshahi District Police Lines on Sunday.

Bss, Rajshahi Inspector General of Police Dr Benazir Ahmed has categorically said there is no room for drug-addicts in police force. “We have already started dope testing of the police members to take departmental action against all the drug-addict police and the process will continue. We want to clean the police force,” he said.

The IGP came up with the observation while inaugurating the “Operation Control and Monitoring Centre” of Rajshahi Metropolitan Police (RMP) along with its Juvenile Digital Database and Hello RMP app on the premises of under-construction RMP Headquarters as chief guest yesterday.

CCTV cameras have been set up at all the important places and crossings in the RMP areas under the operation control centre. Besides, the centre will play a pivotal role towards screening the movement of suspects and criminals as well as identifying them quickly.

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share