Trial Run

তুরস্ক ইসরায়েলের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক চায় : এরদোয়ান

বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু (বামে) ও রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। ছবি: এএফপি

তুরস্ক ইসরায়েলের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক চায় বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্ক প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। ফিলিস্তিনের প্রতি ইসরায়েলের নীতি ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে উল্লেখ করে তিনি শুক্রবার জুম্মার পরে ইস্তাম্বুলে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপকথনে বলেন, ইসরায়েলের ‘উচ্চ পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে’ তুরস্কের সমস্যা রয়েছে। এই সমস্যাগুলো না থাকলে দুই দেশের সম্পর্ক আরও ভালো হত বলে এরদোয়ান মন্তব্য করেছেন।

এরদোয়ান বলেন, ফিলিস্তিন নীতি আমাদের লাল দাগ। ইসরায়েলের ফিলিস্তিন নীতি আমাদের পক্ষে গ্রহণ করা অসম্ভব। তাদের প্রতি ইসরায়েলের নিষ্ঠুর আচরণ অগ্রহণযোগ্য।  উচ্চ পর্যায়ের সঙ্গে যদি আমাদের রাজনৈতিক সমস্যা না থাকত, তাহলে আমাদের সম্পর্ক অন্যরকম হতে পারত।

উল্লেখ্য, মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোর মধ্যে তুরস্কই ইসরায়েলকে প্রথম স্বীকৃতি দেয়। এরদোয়ান ক্ষমতায় আসার আগ পর্যন্ত ইসরায়েলের সঙ্গে তুরস্কের উষ্ণ ও শক্তিশালী অর্থনৈতিক সম্পর্ক ছিল। পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের দখল ও ফিলিস্তিনের প্রতি তাদের আচরণ নিয়ে সাম্প্রতিক কয়েক বছরে তুরস্ক একাধিকবার সমালোচনা করেছে।

২০১০ সালে তুরস্কের একটি জাহাজ ফিলিস্তিনে ত্রাণ দিতে গেলে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী দ্বারা ১০ জন তুর্কি নাগরিক নিহত হন। এ ঘটনার পর তুরস্ক ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের অবসান করে।

২০১৬ সালে দুই দেশের সম্পর্ক আবার স্বাভাবিক হয়ে আসে। কিন্তু ২০১৮ সালে আবারও খারাপ দিকে যায়। সে বছর ডোনাল্ড ট্রাম্প তেল আবিবে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নিলে আঙ্কারা ইসরায়েল থেকে তাদের কূটনীতিককে প্রত্যাহার করে নেয়।

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    6
    Shares