Trial Run

পর্ণোগ্রাফি মামলায় পরিচালক অনন্য মামুনসহ দুইজন কারাগারে

‘নবাব এলএলবি’ সিনেমায় পুলিশকে নিয়ে অশালীন সংলাপের অভিযোগে পর্ণোগ্রাফি আইনের মামলায় সিনেমাটির পরিচালকসহ দুজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলাম তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এ দুজন হলেন— সিনেমাটির পরিচালক অনন্য মামুন এবং অভিনেতা শাহিন মৃধা। বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) দিবাগত মধ্যরাতে অনন্য মামুন ও শাহীন মৃধাকে গ্রেফতার করা হয়। শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) দুপুরে তাদের আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ।

আদালতে তদন্ত কর্মকর্তা রমনা থানায় দায়ের করা মামলার দুই আসামিকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। ঢাকা মহানগর হাকিম মইনুল ইসলাম তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন মঞ্জুর করেন।

‘নবাব এলএলবি’ সিনেমায় পুলিশকে নিয়ে অশালীন সংলাপের অভিযোগে বৃহস্পতিবার তাদের আটক করে ডিবির পুলিশ পরিদর্শক কাজী মো. নাসিরুল মামুন রমনা থানায় পর্ণোগ্রাফি আইনে মামলাটি দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরই গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার তাদের আদালতে পাঠানো হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর রমনা থানায় পর্নগ্রাফি আইনে অনন্য মামুন ও শাহীন মৃধার বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। মামলা নম্বর ১০১। মামলার বাদী ডিএমপি সাইবার ক্রাইম ইউনিটের পুলিশ পরিদর্শক মো. নসিরুল আমিন।

দীর্ঘ সাত বছর পর ‘নবাব এলএলবি’ সিনেমায় জুটি বেঁধে পর্দায় হাজির হয়েছেন শাকিব ও মাহি। এতে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন অর্চিতা স্পর্শিয়া। সিনেমাটির চিত্রনাট্য ও কাহিনি লিখেছেন পরিচালক অনন্য মামুন। সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে সেলিব্রেটি প্রোডাকশন।

‘নবাব এলএলবি’ চলচ্চিত্রটি গত ১৬ ডিসেম্বর ‘আই থিয়েটার’ নামক একটি অ্যাপে মুক্তি পায়। ওই দিন সিনেমাটির অর্ধেক অংশ মুক্তি দেওয়া হয়েছে। বাকি অর্ধেক মুক্তি দেওয়া হবে আগামী ১ জানুয়ারি। ওই চলচ্চিত্রের একটি দৃশ্যে ধর্ষণের শিকার এক নারীকে থানায় মামলা দাখিল করার জন্য যেতে দেখা যায়। ওই দৃশ্যে পুলিশের একজন এসআই (অভিনয় করেছেন শাহীন মৃধা) ওই নারীকে ধর্ষণ বিষয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন। এ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে পুলিশ।

এসডব্লিউ/নসদ/২০৪৫

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    7
    Shares