Trial Run

রেমডেসিভির ব্যবহার না করার পরামর্শ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ছবি : বণিকবার্তা

অসুস্থতা যতই মারাত্মক হোক না কেন হাসপাতালে ভর্তি কভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসায় অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ রেমডেসিভির ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। কভিড-১৯ ওষুধের বিষয়ে চলমান নির্দেশিকা হালনাগাদ করে এ পরামর্শ দিয়েছে সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার বিএমজে মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত হালনাগাদ নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, রেমডেসিভির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ফলাফলসহ কভিড-১৯ থেকে মারা যাওয়া বা ভেন্টিলেশনের প্রয়োজনীয়তার ঝুঁকিকে প্রভাবিত করে—এখন পর্যন্ত এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এ হালনাগাদ নির্দেশিকা এমন সময় এল, যার এক মাস আগে মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) করোনাভাইরাস সংক্রমণের চিকিৎসায় রেমডেসিভির অনুমোদন দেয় বলে ঘোষণা করে ওষুধটির প্রস্তুতকারক সংস্থা গিলিয়েড সায়েন্সেস। এর মাধ্যমে এটা করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় এফডিএর অনুমোদনপ্রাপ্ত প্রথম ওষুধে পরিণত হয়। এরপর বৃহস্পতিবার একই দিনে এফডিএ সন্দেহজনক বা নিশ্চিত আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় রেমডেসিভির ও বাতের ওষুধ ব্যারিসিটিনিবের সংমিশ্রণ জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেয়।

বিষয়টি নিয়ে জন হপকিন্স সেন্টার ফর হেলথ সিকিউরিটির সিনিয়র স্কলার ডা. আমেশ আদালজা বলেন, উদীয়মান গবেষণার কারণে রেমডেসিভির এফডিএর অনুমোদন পেয়ে থাকতে পারে। তবে ডব্লিওএইচওর সুপারিশ নয়। গবেষণাগুলো প্রাথমিকভাবে কভিড-১৯-এর বিপরীতে রেমডেসিভির ওষুধের কিছুটা কার্যকারিতা দেখিয়েছিল। তবে বিস্তৃত ডাটায় সেই ফলাফল পরিবর্তন হচ্ছে।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ওষুধের ইঙ্গিতগুলো বদলে যেতে পারে জানিয়ে আদালজা বলেন, অ্যান্টিভাইরাল ওষুধটি নির্দিষ্ট পরীক্ষায় কিছু উপকার দেখিয়েছিল, তবে সব পরীক্ষায় নয়। আমি মনে করি এটার ব্যবহার দ্রুত কমে যাবে।

সিএনএন / বণিকবার্তা

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares