Trial Run

ফটিকছড়িতে প্রেমিককে বেঁধে প্রেমিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

ছবি : ইউএনবি

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার ভুজপুর থানাধীন চাঁদপুর এলাকায় প্রেমিককে বেঁধে রেখে প্রেমিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

গত শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার নারায়ানহাট চান সাকিনের বাগানে এ ঘটনায় অভিযুক্ত পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।

তারা হলেন- ইদ্রিস মিয়ার ছেলে মো. পারভেজ (২৫), নুরুল হুদার ছেলে মো. ইয়াছিন (২৩), নুরুল ইসলামের ছেলে মো. ফরিদ (৩১), হাবিবুর রহমানের ছেলে সালাউদ্দিন (৩৮) এবং বজল আহমদের ছেলে আবুল মনসুর (৪০)। তারা সবাই ভুজপুর থানার বাসিন্দা।

পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করার পর নির্যাতিত ওই নারী বাদী হয়ে রবিবার ভূজপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম মহানগরীর অক্সিজেন এলাকা থেকে নাজিম নামে এক যুবক তার প্রেমিকাকে তাদের গ্রামের বাড়ি ফটিকছড়িতে নিয়ে যাওয়ার সময় নারায়ানহাট এলাকার নির্জন স্থানে এলাকার বখাটেরা তাদের আটক করে। পরে প্রেমিক নাজিমকে বেঁধে রেখে ৮ জনে মিলে ওই নারীকে ধর্ষণ করে।

পরে স্থানীয়রা ওই নারীকে উদ্ধার করে এবং দু’জনকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ভুক্তভোগী নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে ও পরে অভিযান চালিয়ে আরও ৩ জনকে আটক করেছে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাটহাজারী সার্কেল) আব্দুল্লাহ আল মাসুম বলেন, ‘এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার সাথে জড়িত ৫ জনকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

খবর  : ইউএনবি


Available for everyone, funded by readers. Every contribution, however big or small, makes a real difference for our future. Support to State Watch a little amount. Thank you.

ছড়িয়ে দিনঃ
  • 36
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    36
    Shares